1. admin3@gonomanuserkhobor.com : Admin3 :
  2. smbipplob88@gmail.com : Masud Mukul : Masud Mukul
  3. newsbipplob2014@gmail.com : এস এম বিপ্লব ইসলাম : এস এম বিপ্লব ইসলাম
শুক্রবার, ০৬ অগাস্ট ২০২১, ০৯:১৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:

গাইবান্ধায় আবারও সক্রিয় অজ্ঞান পার্টি, নিঃস্ব হচ্ছে মানুষ

স্টাফ রিপোর্টার
  • প্রকাশের সময় : সোমবার, ১৯ জুলাই, ২০২১

গাইবান্ধায় টিউবওয়েলের পানি পান করে কয়েকটি গ্রামের পুরুষ, গর্ভবতী নারী ও শিশুসহ এ পর্যন্ত শতাধিক ব্যক্তি অসুস্থ হয়ে পরেছেন। অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে পরে হারিয়েছেন ঘরে থাকা মূল্যবান অর্থ সম্পদও। গত চার মাসে সদর উপজেলার খোলাহাটি ইউনিয়নের রতবাজার, কুমারপাড়া, কুপতলা ও কিশামত মালিবাড়ি ইউনিয়নের বড়ুয়ারটারিসহ কয়েকটি গ্রামে এ ঘটনাগুলো ঘটে। গতকাল রবিবার (১৮ জুলাই) রাতেও খোলাহাটি ইউনিয়নের কুমার পাড়ায় এনায়েত মিয়ার বাড়িতে টিউবওয়েল এর পানিতে চেতনানাশক মিশিয়ে পরিবারের সবাইকে অজ্ঞান করে গরু বিক্রির ৪ লাখ ৬৫ হাজার টাকা নিয়ে পালিয়ে যায় অজ্ঞান পার্টির সক্রিয় সদস্যরা। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ওই পরিবারের লোকজন অজ্ঞান অবস্থায় রয়েছে। আর দীর্ঘদিন ধরে চলা এমন ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক আতংকের সৃষ্টি হয়েছে।

কিন্তু কখন, কিভাবে টিউবওয়েল এর পানিতে চেতনানাশক ব্যবহার করছে দুর্বৃত্তরা তা স্পষ্ট করে জানাতে পারেনি স্থানীয়রা। তবে স্থানীয়দের অভিযোগ, চুরির উদ্দেশ্যেই এমন কাজ করছে চোরের দল। তারা আরও জানান, এই এলাকায় কয়েকদিনের ব্যবধানে বেশ কয়েকটি চুরির ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনার নেপথ্যে জেলার অজ্ঞান পার্টির হাত রয়েছে বলে দাবি ভুক্তভোগীদের। পর পর এ ধরনের ঘটনা ঘটায় আতঙ্কিত জেলার সাধারণ মানুষ। ভুক্তভোগীরা জানান, রাতের খাবার পর টিউবওয়েল এর পানি পান করেন তারা। এরপর থেকেই তারা অসুস্থতা বোধ করতে থাকেন এবং সময় বাড়ার সাথে সাথে মাথা ব্যথা ও পরে বমি হতে থাকে। এরপর একে একে সবাই অজ্ঞান হয়ে যায়। আর সেই সুযোগে চোরেরা ঘরে ঢুকে ট্রাংক, আলমারি ভেঙে টাকাপয়সা, সোনার গহনা চুরি করে নিয়ে যায়। তাদের ধারণা, দিনের বেলায় অথবা রাতের আঁধারে টিউবওয়েল এর পানিতে চেতনানাশক ঔষধ মিশিয়ে অজ্ঞান পার্টির সদস্যরা অভিনব কায়দায় এই চুরি সংগঠিত করছে।

সদর উপজেলার খোলাহাটি ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য মিন্টু মিয়া জানান, এ ধরনের ঘটনা এর আগেও কয়েক গ্রামে ঘটেছে। প্রশাসন এই অজ্ঞান পার্টির সঠিক তথ্য সংগ্রহ করতে পারলে এবং এ ধরনের ঘটনার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিলে অজ্ঞান পার্টির তৎপরতা অনেকটাই কমে যেতো। বর্তমানে এই অজ্ঞান পার্টির ভয়ে অনেকেই টিউবওয়েল এর পানি পান করা বন্ধ করে দিয়েছেন এবং আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছেন। এ ব্যাপারে গাইবান্ধা সদর থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ ওসি মাহফুজার রহমান  বলেন, বিষয়টি গুরুত্বের সাথে দেখা হচ্ছে। তদন্ত কাজ চলমান আছে। অজ্ঞান পার্টির সদস্যদেরকে দ্রুত গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | গণ মানুষের খবর

Theme Customized BY LatestNews