1. admin3@gonomanuserkhobor.com : Admin3 :
  2. smbipplob88@gmail.com : Masud Mukul : Masud Mukul
  3. newsbipplob2014@gmail.com : এস এম বিপ্লব ইসলাম : এস এম বিপ্লব ইসলাম
সোমবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৫:০৮ অপরাহ্ন
শিরোনাম:

ফুলছড়িতে টিআর প্রকল্পের টাকা আত্মসাতের অভিযোগ

ফুলছড়ি (গাইবান্ধা) প্রতিনিধি
  • প্রকাশের সময় : রবিবার, ২৯ আগস্ট, ২০২১

গাইবান্ধার ফুলছড়ির উড়িয়া ইউনিয়নের দাড়িয়ারভিটা জামে মসজিদ সংস্কারের জন্য বরাদ্দকৃত টিআর প্রকল্পের টাকা মসজিদ উন্নয়নের কাজে ব্যয় করা হয়নি। ওই প্রকল্পের টাকা আত্মসাতের অভিযোগ করা হয়েছে মসজিদ কমিটির পক্ষ থেকে।উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও) দপ্তর সূত্রে জানা গেছে, ২০২০-২১ অর্থবছরে গ্রামীণ অবকাঠামো রক্ষণাবেক্ষণ কর্মসূচির আওতায় উড়িয়া ইউনিয়নের দাড়িয়ারভিটা জামে মসজিদ ঘর সংস্কারের জন্য এক লক্ষ টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়। গত জুন মাসে ওই মসজিদ সংস্কারের জন্য বরাদ্দকৃত সমুদয় টাকা উত্তোলন করেন প্রকল্প কমিটির সভাপতি আলী আজম। কিন্তু উত্তোলিত ওই টাকা মসজিদ সংস্কারের কাজে ব্যবহার করা হয়নি।

ওই মসজিদ কমিটির সভাপতিসহ অন্যান্য কর্মকর্তা এবং সাধারণ মুসল্লিরা জানান, তাদের মসজিদ সংস্কারে টাকা বরাদ্দের কথা শুনেছেন। কিন্তু ওই টাকা মসজিদ সংস্কারের কাজে ব্যয় করা হয়নি। অভিযোগ করা হয়েছে প্রকল্পের চেয়ারম্যান আলী আজম গোপনে ভুয়া ভাউচার দেখিয়ে বরাদ্দের টাকা তুলে আত্মসাৎ করেন। সম্প্রতি বিষয়টি তারা জানতে পেরেছেন। দাড়িয়ারভিটা জামে মসজিদ পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মোত্তালেব বলেন, আমাদের মসজিদটি মুসল্লিদের দানের টাকায় চলছে। গত দুই বছরে মসজিদে কোন প্রকার সরকারি অনুদান প্রদান করা হয়নি।

মসজিদ সংস্কারের নামে যারা টাকা তুলে আত্মসাত করেছেন তাদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট দপ্তরে লিখিত অভিযোগ করা হবে। দাড়িয়ারভিটা জামে মসজিদ সংস্কার প্রকল্পের সভাপতি আলী আজম বলেন, মসজিদ সংস্কারের জন্য টিআর প্রকল্পের এক লক্ষ টাকা পেয়েছি। উক্ত টাকা ফুলছড়ি উপজেলা চেয়ারম্যান জিএম সেলিম পারভেজের পরামর্শে উড়িয়া ইউনিয়নের দারুস সালাম জামে মসজিদে প্রদান করা হয়েছে। মসজিদের টাকা আত্মসাত করা হয়নি। এ ব্যাপারে ফুলছড়ি উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জিএম সেলিম পারভেজ বলেন, দারুস সালাম জামে মসজিদের লোকজনের দাবীর প্রেক্ষিতে ওই মসজিদ সংস্কারের জন্য এক লক্ষ টাকা প্রদান করা হয়েছে।

দাড়িয়ারভিটা এলাকায় দুইটি মসজিদ হওয়ায় প্রকল্পের নাম ভুলবসত অন্যটা হয়েছে। প্রকল্পের সভাপতি বরাদ্দের টাকা দারুস সালাম জামে মসজিদ সংস্কারের কাজেই ব্যবহার করেছেন। ফুলছড়ি উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা শহীদুজ্জামান শামীম বলেন, দাড়িয়ারভিটা জামে মসজিদ সংস্কারের বরাদ্দকৃত টাকা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জিএম সেলিম পারভেজের সুপারিশে প্রকল্প সভাপতিকে প্রদান করা হয়েছে। কাজ না করে থাকলে অর্থ ফেরতের জন্য সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে তিনি জানান।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | গণ মানুষের খবর

Theme Customized BY LatestNews