1. admin3@gonomanuserkhobor.com : Admin3 :
  2. smbipplob88@gmail.com : Masud Mukul : Masud Mukul
  3. newsbipplob2014@gmail.com : এস এম বিপ্লব ইসলাম : এস এম বিপ্লব ইসলাম
  4. cssdrtkbtav@ceswyn.link : tamieo9013313440 :
বৃহস্পতিবার, ২১ অক্টোবর ২০২১, ০৭:৫৫ অপরাহ্ন
শিরোনাম:

নিজেকে বাচাঁতে সাংবাদিক ম্যানেজ মিশনে নেমেছেন চেয়ারম্যান-পিআইও

স্টাফ রিপোর্টার
  • প্রকাশের সময় : রবিবার, ১০ অক্টোবর, ২০২১

সরকারের টিআর-কাবিটা প্রকল্পের কাজ না করে বরাদ্ধকৃত টাকা আত্নসাতের খবর সাপ্তাহিক গন মানুষের খবর পত্রিকাসহ বিভিন্ন গনমাধ্যমে প্রকাশিত হওয়ার পর নড়েচড়ে বসেছে প্রশাসন। আর তদন্তের নোটিশ প্রাপ্তীর পর  নিজেকে বাচাঁতে সাংবাদিক ম্যানেজ মিশনে নেমেছেন ফজলুপুর ইউপি চেয়ারম্যান আবু হানিফ প্রামানিক। তাকে সার্বিক সহায়তা করছেন উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা শহিদুজ্জামান শামীম।

সুত্র জানায়, ফুলছড়ি উপজেলার ফজলুপুর ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে সরকারের টিআর- কাবিটার বরাদ্ধকৃত টাকা আত্নসাতের খবর বিভিন্ন গনমাধ্যমে প্রচারের পর বিভিন্ন টেলিভিশন সাংবাদিক, জাতীয় এবং স্থানীয় পত্রিকার বেশ কিছু সাংবাদিক বক্তব্য জানতে ফোন করা মাত্রই তাদেরকে পিআইও চা পানের দাওয়াত দেন। এরপর শুরু হয় বিভিন্ন প্রক্রীয়ায় ম্যানেজ মিশন। প্রতিদিনই পিআইও অফিসে চলে দফারফা। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক পিআইও অফিসের এক কর্মচারী জানান, এতো সাংবাদিক ভাই ফুলছড়ি আর গাইবান্ধাতে আছে আগে জানা ছিলো না। দুর্নীতির রিপোর্টের পর দলে দলে সাংবাদিক আসে অফিসে।

তাদেরকেও তো আপ্যায়ন করা লাগে। চেয়ারম্যান আর পিআইও দুজন মিলেই তাদেরকে ম্যানেজ করছে৷ এ পর্যন্ত ৩০ জনের নাম তালিকায় দেখলাম। তবে  টাকার পরিমান ও মিডিয়ার নাম বলতে চাননি তিনি। সুত্র জানায়, আগামী সোমবার (১১ অক্টোবর)  তদন্তের নোটিশ হাতে পাবার পর প্রকল্পের সভাপতি ও ইউপি চেয়ারম্যান সহ অন্যান্য প্রকল্প সভাপতিরা পুনরায় প্রকল্পে মাটির কাজ শুরু করেছে। তারা সংশ্লিষ্ঠ প্রকল্প এলাকার লোকজনকে নানা ভাবে ম্যানেজের চেস্টাও করছে। অন্যদিকে নিজের দোষ আড়াল করতেই মাছ দিয়ে শাক ঢাকার চেস্টা করছেন দুর্নীতিবাজ পিআইও শহিদুজ্জামান শামীম এবং ইউপি চেয়ারম্যান  আবু হানিফ প্রামানিক।

স্থানীয় সাংবাদিকদের ম্যানেজ করে চেয়ারম্যান স্থানীয় পত্রিকায় প্রকাশিত/ প্রচারিত সংবাদের প্রতিবাদ সহ তার পক্ষে টিআর কাবিটা প্রকল্পের কাজ সম্পর্ণ হয়েছে মর্মে সংবাদ ছাপানো হয়েছে। প্রসঙ্গত, প্রকল্প সভাপতি জনপ্রতিনিধি ও সরকার দলের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতা- কর্মীরা সরকারের টিআর কাবিটা  প্রকল্পের প্রায় সাড়ে তিনকোটি টাকার কাজ না করে এই টাকা লোপাট করেছেন। উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও) শতকরা বারো টাকা পিসি নিয়ে এসব টাকা ছাড় করেছেন বলে অভিযোগ রয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | গণ মানুষের খবর

Theme Customized BY LatestNews