1. admin3@gonomanuserkhobor.com : Admin3 :
  2. smbipplob88@gmail.com : Masud Mukul : Masud Mukul
  3. newsbipplob2014@gmail.com : এস এম বিপ্লব ইসলাম : এস এম বিপ্লব ইসলাম
সাদুল্লাপুরে ভোটের দাবিতে বিক্ষোভ ও অবস্থান ধর্মঘট
বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২, ১০:৩৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম:

সাদুল্লাপুরে ভোটের দাবিতে বিক্ষোভ ও অবস্থান ধর্মঘট

মোঃ আবু হাসানুল হুদা রাশেদ
  • প্রকাশের সময় : সোমবার, ১৬ মে, ২০২২
  • ৩২ বার পঠিত
গাইবান্ধার সাদুল্লাপুরে ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন স্থগিতাদেশের পেক্ষিতে ভোটের দাবিতে বিক্ষোভ ও অবস্থান ধর্মঘট এবং মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসি। ”ভোট চাই” ভোট আমাদের অধিকার ” এই স্লোগানকে সামনে রেখে ১৬ মে সাদুল্লাপুর উপজেলার বনগ্রাম কামারপাড়া ও জামালপুর এই তিনটি ইউনিয়নের জনগনের আয়োজনে প্রধান সড়কে এই বিক্ষোভ ও অবস্থান ধর্মঘট এবং মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।
বিক্ষোভ ও অবস্থান ধর্মঘটে বক্তব্য রাখেন, বনগ্রামের সাবেক মেম্বার শাহাজাহান সরকার,কমরেড কামরুল,ফজলুল কাফি মাসুম,কামারপাড়ার শাহাজাহান মেম্বার, বনগ্রামের শাহ আলম মেম্বার, ভুটান,মেহেদি হাসান,আলামিন,প্রমুখ। বক্তরা বলেন, আগামি ১৫ জুন অনুষ্ঠিতব্য ইউনিয়ন পরিষদের ভোটগ্রহণ স্থগিতের সিদ্ধান্ত নিয়েছে নির্বাচন কমিশন  সিন্ধান্ত অনুসারে নির্বাচনী তফসিল হতে সাদুল্লাপুর উপজেলার  ইউনিয়নকে বাদ দিয়ে প্রয়োজনীয় কার্যক্রম গ্রহণে সংশ্লিষ্টদের পত্র মাধ্যমে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।
যারা ভোটে নির্বাচিত হতে পারবে না মনে করে তারা পৌরসভাকে পুঁজি করে নির্বাচন স্থগিতাদেশ করার চেষ্টা চালাচ্ছে। কামারপাড়ার ভোটার ভুটান জানান, ভোট আমাদের অধিকার আমরা ভোট চাই। পৌরসভা যদিও হয় সাদুল্লাপুরের উন্নয়ন হবে কিন্তু ভোটটাকে বন্ধ করার জন্য তারাই সিমানা নির্ধারণ করেছে কাছের গ্রাম বাদ দিয়ে দুরের গ্রামের নাম দিয়েছে, যাতে মামলা করতে সুবিধা হয়।
বনগ্রামের শাহ আলম মেম্বার জানান,বনগ্রামের চেয়ারম্যান শাহিন,কামারপাড়ার প্যানেল চেয়্যারমান গোফ্ফার জামালপুরের চেয়্যারমান নুরুজ্জামান মন্ডলসহ আরো অনেকে নিজেদের পদটিকে টিকিয়ে রাখতে তারা জনগনের ভোটের অধিকার থেকে বঞ্চিত করে রাখার পায়তারা করছে।বার বার রিট করছে। তারা জানে নির্বাচন বন্ধ করলে মামলার জটিলতায় চেয়ারম্যানি করতে পারবে আজীবন এটাই আশা।
যেহেতু তফশীল ঘোষনা হয়েছে তাই আমরা ভোট চাই। ফুল মিয়া জানান,১১ টি ইউনিয়নের মধ্যে ৮ টি ইইনিয়ন ভোট হয়েছে ঐ সব ইউনিয়নে ভোটাররা নতুন চেয়ারম্যান-মেম্বার বানিয়েছে। এই তিন চেয়ারম্যান জানে আমরা(তারা) ভোটে  হতে পারবো না, তাই  সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তার যোগসাজসে নির্বাচন কমিশন তফশীল ঘোষনা করলেও বার বার  ভোট বন্ধ করার পায়তারা করছে।
এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা লুৎফর রহমান জানান,যদিও আগের তফশীল অনুযায়ী নির্বাচনের মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ তারিখ ১৭ মে। কিন্তু বৃহস্পতিবার (১২ মে) বিকেলে বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশনের এক অফিস আদেশপত্রে এই তথ্য জানা গেছে। পত্রটি নির্বাচন পরিচালনা-২ উপসচিব মো. আতিয়ার রহমান স্বাক্ষরিত। ইতোমধ্যে কমিশন থেকে পাঠানো এ সংক্রান্ত পত্র জেলা ও উপজেলা নির্বাচন অফিসারের কার্যালয়ে পৌঁছেছে।
ওই পত্রে উল্লেখ করা হয়, গাইবান্ধা জেলার সাদুল্লাপুর উপজেলাধীন বনগ্রাম, জামালপুর ও কামারপাড়াসহ আরও কয়েকটি জেলার বেশ কিছু ইউপি পরিষদ নির্বাচন তফসিল হতে বাদ দেয়ার জন্য মাননীয় নির্বাচন কমিশন সিদ্ধান্ত প্রদান করেছেন। বর্ণিত অবস্থায়, আগামী ১৫ জুন অনুষ্ঠিতব্য ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন তফসিল হতে বাদ দিয়ে প্রয়োজনীয় কার্যক্রম গ্রহণে সংশ্লিষ্ট জেলা ও উপজেলা নির্বাচন অফিসারকে নির্দেশ দেওয়া হয়। তাই পরবর্তী নির্দেশ না পাওয়া পযর্ন্ত আমরা কোন কিছু বলতে পারছি না।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | গণ মানুষের খবর

Theme Customized BY LatestNews